প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয়াটা বিএনপির বড় ভুল ছিল: বি. চৌধুরী


নিজস্ব প্রতিবেদক

আরটিএনএন

ঢাকা: ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খালেদা জিয়াকে যে প্রস্তাব দিয়েছিলেন তা গ্রহণ না করা বিএনপির জন্য বিগ মিসটেক ছিল বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ও বিকল্প ধারা বাংলাদেশের প্রধান ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন,তাদের স্বরাষ্ট্র ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় দেয়ার প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল। এই দুই মন্ত্রণালয় থাকলে আর কিছু লাগে?

শুক্রবার  বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে এম এ জি ওসমানীর ৩৩তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। জাতীয় স্মরণ মঞ্চ সভাটির আয়োজন করে।

আগামী নির্বাচনে সব দলের জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির জন্য সরকারের কাছে আহ্বান জানিয়ে বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন, বিরোধী দলগুলোর নেতাকর্মীদের নামে হাজারো মামলা রয়েছে। আগামী নির্বাচনে তারা নির্বাচন করবে নাকি মামলা সামলাবে। তাই আগামী দুই বছর সকল রাজনৈতিক মামলা স্থগিত করা হোক। মামলা স্থগিত করা হলে হয়তো লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড সমান হবে।

মামলা দুই বছর স্থগিত করা হলে এর মধ্যে নির্বাচন হয়ে যাবে। মামলা প্রত্যাহারের দরকার নাই। যাদের বিচার করার দরকার হবে দুই বছর পর তাদের বিচার কাজ আবার শুরু করা হবে।

তিনি বলেন, এমন একটি নিরপেক্ষ সরকার দরকার যার মাধ্যমে সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। অতীতে যতগুলো নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে, সেগুলো নির্বাচন কমিশনের ওপর নয়, সরকার নিরপেক্ষ ছিল এটাই মূল কথা।

এম এ জি ওসমানীর স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, তিনি বড় মাপের মানুষ ছিলেন। বড় হৃদয়ের মানুষ ছিলেন। একজন বড় মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। অত্যন্ত সাহসী মানুষ ছিলেন এবং গণতন্ত্রের জন্য সাহস করে কথা বলতেন।

আয়োজক সংগঠনের আহ্বায়ক প্রকৌশলী আ হ ম মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এনাম আহমেদ চৌধুরী, সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ, অর্থনীতিবিদ মাহবুব উল্লাহ, মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।