দুদক টিমের ওপর হামলায় ম্যাজিস্ট্রেটকে আসামী করে মামলা


নিজস্ব প্রতিনিধি

আরটিএনএন

সিলেট:  সিলেট জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে দুদকের কর্মকর্তাদের ওপর হামলা ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম)কে আসামী করে মামলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার আদালতের নির্দেশে এ মামলা হয় বলে জানান কতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুহেল আহাম্মদ।

এর আগে ৯ ফেব্রুয়ারি সিলেট জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের এক কর্মচারীকে ধরতে গিয়ে হামলার শিকার হন দুদক কর্মকর্তারা। এ ঘটনায় ওই রাতে দুদক সিলেট কার্যালয়ের পরিচালক শিরিন পারভীন কতোয়ালি থানায় হাজির হয়ে মামলা করতে চাইলে পুলিশ তা সাধারণ ডায়রি হিসেবে গ্রহণ করে।

বৃহস্পতিবার সিলেট মূখ্য মহানগর বিচারিক হাকিম সাইফুজ্জামান হিরু এই সাধারণ ডায়রি নিয়মিত মামলা হিসেবে গ্রহণের আদেশ দেন।

আদালতের আদেশ পেয়ে বৃহস্পতিবার রাতে সাধারণ ডায়রিটি মামলা হিসেবে রুজু হয় বলে জানান ওসি সুহেল আহাম্মদ।

তিনি বলেন, জিডিতে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের বাণিজ্য উচ্চমান সহকারী আজিজুর রহমান ছাড়া আর কারো নাম উল্লেখ নেই। তবে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও তার অধীনস্থ একজন ম্যাজিস্ট্রেটকে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কর্মচারীদের হামলা ও সরকারী কাজে বাধা দানের জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছে। ফলে তাদের মামলায় আসামী করা হবে।

সিলেটের বর্তমান অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম)-এর দায়িত্বে আছেন আবু সাফায়াৎ মুহম্মদ শাহেদুল ইসলাম।

প্রসঙ্গত, ৯ ফেব্রুয়ারি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কর্মচারী আজিজুর রহমানকে গ্রেপ্তার করতে গিয়ে হামলার শিকার হন দুদক কর্মকর্তারা। এতে দুদকের কয়েকজন সদস্য আহত হন। এসময় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের অন্য কর্মচারীদের বাধার মুখে আজিজুরকে আটক করেও নিয়ে যেতে পারেনি দুদক। পরে সোমবার ঢাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে দুদক। ওইদিনই তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। হামলার ঘটনা তদন্তে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনারকে প্রধান করে একটি কমিটিও গঠন করে জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়।

মঙ্গলবার আজিজুর রহমানের বিরুদ্ধে কতোয়ালি থানায় মামলা করেন দুদক সিলেট কার্যালয়ের উপ সহকারী পরিচালক ওহায়েদ মঞ্জু সোহাগ। ওই কর্মচারীকে ঘুষসহ হাতেনাতে আটক করা হয়েছিলো বলে দাবি করেছিলো দুদক।