ফ্লিনের ভুল তথ্য দেয়ার বিষয়টি আগেই জানতেন ট্রাম্প


আন্তর্জাতিক ডেস্ক

আরটিএনএন

ওয়াশিংটন: মার্কিন প্রশাসনের নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিন রাশিয়ার সঙ্গে কথা বলার বিষয়ে যে ভুল তথ্য দিয়েছেন তা আগে থেকেই জানতেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

জাস্টিস ডিপার্টমেন্ট ট্রাম্পকে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই জানিয়ে দেয়, ফ্লিন ক্ষমতা গ্রহণের আগেই রুশ কূটনৈতিকের সঙ্গে ওবামা আরোপিত নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার বিষয়ে কথা বলেন।

এ বিষয়ে পরবর্তীতে তিনি জনগণ ও মার্কিন কর্মকর্তাদের বিভ্রান্তিকর তথ্যও দেন। আস্থা ভঙ্গের জন্য ৩ সপ্তাহ পর তাকে পদত্যাগ করতে বলা হয়।

হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র শন স্পাইসার এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, প্রেসিডেন্ট এই উপসংহারে পৌঁছেছেন যে, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার ওপর তার, আর কোনো বিশ্বাস নেই।

রিপাবলিকানরাও রাশিয়ার সঙ্গে ফ্লিনের যোগাযোগের ব্যাপারটি তদন্ত করে দেখতে বলেন।

এছাড়াও জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের উপদেষ্টা হিসেবে ক্ষমতা নেয়ার পরই ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই)-এর গোয়েন্দারা তাকে এ বিষয়ে একের পর এক প্রশ্ন করেন।

ফ্লিন সেনাবাহিনীর একজন অবসরপ্রাপ্ত লেফটেনেন্ট জেনারেল। জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদে তিন সপ্তাহ থাকার পর সোমবার রাতে তিনি পদত্যাগ পত্র জমা দেন।

সিবিসি নিউজ অবলম্বনে